স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ ৬২ বছরের বৃদ্ধের বিরুদ্ধে

Life24 Desk   -  

দশম শ্রেণীর এক নাবালিকা স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ষাটোর্ধ এক বৃদ্ধকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এহেন ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়্গ্রাম জেলার জামবনী থানার পুড়শুলি গ্রামে।

পুলিশ জানিয়েছে ধৃত ওই বৃদ্ধের নাম বিলাস মাহাত (৬২)। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে প্রতিবেশী বিলাস মাহাত ওই নাবালিকাদের বাড়িতে যাতায়াত করতেন। গ্রামের সম্পর্ক অনুযায়ী বিলাস মাহাত ওই নাবালিকার দাদু। অভিযোগ বাড়িতে একটু ফাঁকা পেলেই বিলাস ওই নাবালিকার শরীরে হাত দিতেন। আর এই ঘটনার কথা কাউকে বললে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিতেন।

নাবালিকার অভিযোগ, গত ৭ ফেব্রুয়ারি তাঁর বাড়িতে কেউ ছিল না। সেই সময় বিলাস তাঁদের বাড়িতে গিয়েছিলেন। বাড়িতে লোক না থাকার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বলপূর্বক ওই নাবালিকাকে ধর্ষণ করে এবং কারও কাছে মুখ খুললে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে। পরে চলতি মাসের ১৯ তারিখ মা মাটি কাটতে গিয়েছিল, বাবা জমিনের কাজে গিয়েছিলেন। সেই সময় বিলাস আমাদের বাড়িতে এসে আমাকে ঘুরতে যাওয়ার নাম করে জঙ্গলে নিয়ে যায়। সেখানেও জোর পূর্বক আমাকে ধর্ষণ করে প্রাণ নাশের হুমকি দেন। এরপর আমি অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে বাড়িতে এসে মাকে সব কথা খুলে বলি।

নাবালিকার পরিবার সুত্রে জানা গিয়েছে, বিলাস মাহাতর বাড়িতে গিয়েছিলেন ওই নাবালিকার বাবা, মা। কিন্তু বিলাস তাদের সব কথা অস্বীকার করেন। এরপর মঙ্গলবার জামবনী থানায় লিখিতভাবে অভিযোগ দায়ের করেন নাবালিকা। অভিযোগ পাওয়ার পরেই পুলিশ গ্রামে গিয়ে বিলাস মাহাতকে গ্রেফতার করে। এদিন ঝাড়্গ্রাম আদালত তোলা হলে বিচারক জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয়।

Spread the love