ভোটব্যাংকের কথা মাথায় রেখে জনমুখী বাজেট, মত বিরোধীদের

Life24 Desk   -  

লোকসভা নির্বাচনের আগে মোদি সরকার যে বাজেট ঘোষণা করল, সেটা জনগণের উপযোগী বলেই মনে করছেন অর্থনীতিবিদদের একাংশ। তবে বাজেটে কৃষকদের আয় বাড়ানোর দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে।  অর্থমন্ত্রকের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল ঘোষণা করেন, যে সমস্ত কৃষকদের ২ হেক্টর পর্যন্ত জমি আছে তাঁদের অ্যাকাউন্টে সরাসরি ৬ হাজার টাকা দেবে সরকার। কৃষকদের সুবিধার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। তিনি আরও জানান, প্রায় ১২ কোটি কৃষকের অ্যাকাউন্টে এই টাকা ঢুকবে। এরজন্য মোট খরচ হবে ৭৫ হাজার টাকা। তবে এই টাকা এক কিস্তিতে কৃষকদের অ্যাকাউন্টে ঢুকবে না, তিন ভাগে ২ হাজার টাকা করে তাঁদের অ্যাকাউন্টে সেই টাকা দেওয়া হবে। শুধু তাই নয় কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার জন্য ২২ টি ফসলের ন্যূনতম সমর্থনমূল্য অন্তত ৫০ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে।

প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে ক্ষতি হলে কৃষকদের শস্য ঋণে ২ শতাংশ ছাড় দেওয়া হবে বলেও জানান মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল৷ এই বাজেটে গোমাতার সুরক্ষার জন্য বিশেষ প্রকল্পের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে৷ সেই প্রকল্পের নাম দেওয়া হয়েছে কামধেনু যোজনা। পশুপালনের ক্ষেত্রে ৭৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। পশুপালনকারীরা কিষাণ ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে ঋণও নিতে পারবেন৷ যে কৃষকরা পশুপালন এবং মৎস্যচাষের জন্য কিষাণ ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে ঋণ নেবেন ২ শতাংশ করে সুদে ছাড় পাবেন তাঁরা। এছাড়া আলাদা মৎস্য মন্ত্রক তৈরি করছে সরকার।

সুতরাং বলাই যায়, এই বাজেটে মোদি সরকার কৃষকদের কথা চিন্তা-ভা্বনা করেই বাজেট পেশ করেছে। এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে হয়তো কৃষকরাও উপকৃত হবেন। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে অন্য জায়গায়। রাজনৈতিক সমালোচকদের মত, মোদি সরকার কি লোকসভা ভোটকে মাথায় রেখে কৃষকদের স্বার্থে এত কিছু পরিকল্পনা নিয়েছেন? নাকি সত্যি তিনি কৃষকদের কথা ভেবেই এই পরিকল্পনা নিয়েছেন? প্রসঙ্গত, বিধানসভা ভোটে রাহুল গান্ধী কৃষিঋণ মকুবের বিষয়টিকে বড় হাতিয়ার করেছিলেন। তিন রাজ্যে ভালো ফলও করেছেন। রাজনৈতিক সমালোচকরা প্রশ্ন তুলছেন তবে কি লোকসভা নির্বাচনে জায়গা দখলের লড়াইয়ে কৃষকদেরকেই মূল অস্ত্র করতে চাইছেন মোদি? শুধু কৃষকরাই নন, মোদি সরকার যে ধরনের বাজেট করেছেন, তাতে সাধারণ মানুষের সুবিধার দিকেও নজর দেওয়া হয়েছে বলে মনে করছেন তাঁরা। তাঁদের বক্তব্য, মোদি সরকার যে বাজেট তৈরি করেছে সেটা কি লোকসভা ভোটের ভোটব্যাংকের কথা মাথায় রেখেই তৈরি করেছেন? রাজনৈতিক সমালোচকদের পাশাপাশি বিরোধীরাও মোদির বিরূদ্ধে সুর চড়িয়ে বলেছেন, লোকসভা ভোটে নিজেদের জায়গা শক্ত করতেই এই ধরনের বাজেট তৈরি করেছেন। শুধু তাই নয়, বিরোধীদের দাবি এতো দিনে কেন্দ্রীয় সরকারের অনেক সিদ্ধান্তে জনসাধারণ ক্ষতির সন্মুখীন হয়েছে, কৃষকরাও অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাঁদের দাবি সাধারণ মানুষের মন পেতেই এই ধরনের বাজেট করা হয়েছে।

Spread the love