ঋণমকুবের নামে প্রহসন, কংগ্রেসকে কটাক্ষ বিজেপির

Life24 Desk   -  

মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস সরকার ক্ষমতায় আসার পর কৃষিঋণ মকুব করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছিল। শপথ নেওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ ঘোষণা করেন কৃষকদের ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণমকুব করা হতে পারে। কিন্তু,  সেটা সঠিকভাবে বাস্তবায়িত না হওয়ায় সমস্যা পড়েছেন কৃষকরা। যে পরিমাণ ঋণে ছাড় পাওয়ার কথা ছিল, সেই পরিমাণ ছাড় কৃষকরা পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ করেছেন অনেক কৃষকরাই।

তাঁদের দাবি সরকার যে ঋণমকুবের প্রকল্প ঘোষণা করেছে সেই প্রকল্প অনুযায়ী যাঁর হয়তো ২৩ হাজার ৮১৫ টাকা ছাড় পাওয়ার কথা, পঞ্চায়েতের তালিকায় এসেছে সেখানে দেখা যাচ্ছে তাঁর মাত্র ১৩ টাকা ঋণমকুব হয়েছে। এই বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর বিরোধীরা কংগ্রেসকে কটাক্ষ করতে শুরু করেছে।

এ বিষয়ে কৃষকরা আধিকারিকদের কাছে অভিযোগও জানিয়েছেন। এক আধিকারিক বলছেন, “নিশ্চিতভাবেই, এটা একটা উপকারি প্রকল্প। আমার গ্রামের অন্য কৃষকরা এর সুবিধাও পেয়েছেন। আমি এ ব্যপারে আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলেছি। আশা করি শীঘ্রই আমার সমস্যাটা মিটে যাবে।”

এই প্রসঙ্গে বিজেপির অভিযোগ, রাজ্যে ঋণমকুবের নামে প্রহসন চলছে। এটা কোনও বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়, প্রচুর কৃষক এমন আছেন যাঁদের ১০ টাকা ২০ টাকা থেকে শুরু করে ১০০-২০০ টাকার ঋণ মকুব হয়েছে। কৃষকদের নিয়ে এভাবে রাজনীতির খেলার অধিকার নেই কংগ্রেসের। বিজেপি এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করারও হুমকি দিয়েছে। ভোট যত এগিয়ে আসছে রাজনৈতিক তরজা ততই বেড়ে চলেছে। বিজেপি আরও দাবি করেছে, মানুষকে ভুল বুঝিয়ে ক্ষমতায় এলেও, এখন মানুষ বুঝতে পারছেন, তারা কী ভুল করেছেন। লোকসভা ভোটে মানুষ এরকম ভুল করবে না বলেই মনে করছে বিজেপি।

 

Spread the love