দাবদাহ থেকে রেহাই নেই ফসলের, রয়েছে ফলন মার খাওয়ার আশংকা

Life24 Desk   -  

জেলায় জেলায় বিক্ষিপ্তভাবে দু-একবার কালবৈশাখীর ঝড়বৃষ্টি হলেও এই মুহূর্তে তাপপ্রবাহে ক্ষতি হচ্ছে ফসল থেকে জনজীবন। একদিকে যেমন বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মানুষ রোদের তেজে হাঁসফাঁস করছেন, তেমনই ফসল তাপ সইতে না পেরে ঝিমিয়ে পড়ছে। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭ থেকে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি ঘোরাফেরা করায় গাছের স্বাভাবিক বাড়বৃদ্ধি হচ্ছে না। ফুলের রেণু শুকিয়ে যাওয়ায় ফলনও মার খেতে বসেছে।

ঠিক সময়ে বৃষ্টি না হওয়ায় আমের গুটিরও ক্ষতি হয়েছে। মাঝে কালবৈশাখীর বৃষ্টিতে কিছুটা পরিস্থিতির উন্নতি হলেও ফের আগের অবস্থাতে ফিরে এসেছে। তবে এই সময় বোরো ধান কাটার মরশুম। কালবৈশাখীর ঝড়বৃষ্টি বেশি হলে ধানের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। সম্প্রতি বর্ধমান জেলায় এই অবস্থা হয়েছে। ধানের ক্ষতির ধাক্কা সামলাতে না পেরে চাষির আত্মহত্যার ঘটনাও ঘটেছে। তবে সবজি তিল পাটের ক্ষেত্রে এই বৃষ্টি কাজ দেবে। তিলে এখন ফুল আসতে শুরু করেছে। বোরো চাষিরা এই সময় জমির ৮০ ভাগ ধান পাকা ধান কেটে নিলে লাভবান হতে পারেন। পুরো জমির ধান পাকাতে গেলে ক্ষতির আশংকাই থেকে যায়। মাঝে দীর্ঘ একমাসেরও বেশি সময় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় সবজি তিল পাট বোরো সমস্যায় পড়েছিল। এই সময় সেচ দিয়ে ফসল বাঁচানো সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়। পুকুর, ডোবা, নদী-নালার হাল খারাপ। জল প্রায় শুকিয়ে গিয়েছে। সেখান থেকে সেচ দেওয়ার প্রয়োজনীয় জল পর‌্যন্ত পাওয়া যায়নি। গ্রীষ্মকালীন সবজি চাষের অনুকূল পরিস্থিতি তৈরি সব জায়গায় এখনও হয়নি। জেলায় জেলায় এখনও পর‌্যন্ত জলের থেকে ঝড়ের দাপটই বেশি হয়েছে। যেখানে সেচের সুযোগ আছে, সেখানে গভীর ও অগভীর নলকূপের সাহায্যে সেচ দিয়ে সবজি চাষের কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। এখনই সবজি গাছ তৈরি করতে না পারলে পরে সমস্যা দেখা দেবে। ঠিক সময়ে বর্ষা নেমে গেলে গোড়ায় জল জমে গাছ নষ্ট হবে। আলু ও আমনের মাঝে কিছু সবজি উত্পাদন করতে পারলে চাষি পরিবারের কিছুটা সুরাহা হয়।

উত্পাদিত ফসল স্থানীয় হাটে বা পাইকারি ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করে একদিকে যেমন চাষের খরচও উঠে আসবে, অন্যদিকে ভালো আয়ও হবে। চাষি পরিবারে চাষই হচ্ছে প্রধান আয়ের পথ। এবারে জমিতে আলু বিক্রি করে লোকসানে পড়তে হয়েছে চাষিদের। এখনও লোকসানি দরের কবলেই পড়ে আছেন চাষিরা। এরই মাঝে সবজির ফলন ভালো হওয়ার ফলে উপযুক্ত দর পাওয়া গেলে কিছুটা হলেও সুরাহা হবে।

Spread the love

আপনার প্রিয় ওয়েব ম্যাগাজিন ‘Life24’-এ আপনিও লিখতে পারেন এই ম্যাগাজিনের উপযুক্ত যে কোনও লেখা। লেখার সঙ্গে পাঠাবেন উপযুক্ত ২-৩টি ফটো। লেখা পাঠাবেন ইউনিকোডে টাইপ করে। ইউনিকোড ছাড়া কোনও লেখাই গ্রহণ করা হবে না। লেখা ও ফটো পাঠাবেন editor.life24@gmail.com আইডি-তে। কোন সেগমেন্টের লেখা পাঠাচ্ছেন, তা মেলের সাবজেক্টে অবশ্যই লিখে দেবেন। আর অবশ্যই মেলে আপনার নাম, ঠিকানা ও ফোন নম্বর জানাবেন।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে খুব কম খরচে আপনার পণ্য কিংবা সংস্থার বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। বিস্তারিত জানার জন্য মেল করুন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে ৩১ মার্চ পর্যন্ত আপনি একেবারেই বিনামূল্যে দিতে পারবেন শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন। এই বিভাগের যে কোনও সেগমেন্টের জন্য ৫০ শব্দের মধ্যে ইউনিকোডে লিখে মেল করে দিন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।  মেলের সাবজেক্টে লিখে দেবেন 'শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন'।

# 'Life24' ওয়েব ম্যাগাজিন বা এই ওয়েব ম্যাগাজিনের লেখা সম্পর্কে আপনার মতামত লিখে জানান নিচের কমেন্ট বক্স-এ। আর হ্যাঁ, ম্যাগাজিনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার পরিচিতদের।