ফেসবুক কি বন্ধ হয়ে যাবে!

Life24 Desk   -  

বেশ কিছুদিন ধরে ইউজারদের ডেটা লিক-হওয়ার ঘটনা ঘটছে৷ লক্ষ লক্ষ ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হয়ে যাচ্ছে ফেসবুকে৷ বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে তথ্যের গোপনীয়তা যে একেবারেই তলানিতে ঠেকেছে সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই৷ ব্যবহারকারীরা নানা রকম পোস্ট পরিচিতদের সঙ্গে শেয়ার করেন৷ কোনও বিষয় নিয়ে প্রত্যেকেই নিজের নিজের মত প্রকাশ করেন৷ ফলে সেখানে ভালো মন্তব্য, ভালো পোস্টও যেমন থাকে, তেমন বিরোধীতা তৈরি করার মতো পোস্ট বা মন্তব্যও থাকে৷

তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা এখানেই গণ্ডগোলের আশঙ্কা করছেন৷ ২০১২ সালে ইন্সস্টাগ্রাম কিনেছিল ফেসবুক৷ পরে হোয়াটসঅ্যাপও৷ যদিও ফেসবুক-ই সংস্থার ফ্ল্যাগশিপ সার্ভিস এখনও পর্যন্ত৷ বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, এই অবস্থাটা শীঘ্রই বদলে যাবে৷

দেখা যাচ্ছে, ফেক নিউজ, তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষা, হ্যাকিং ও হিংসাত্মক আলোচনা বন্ধ করা নিয়ে ফেসবুক যতই চেষ্টা করুক না কেন, দিনের শেষে এই বিষয়গুলিকে ঠেকাতে পারছে না এই তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা৷

বিখ্যাত তথ্যপ্রযুক্তি লেখক ও সাংবাদিক ডেভিড কির্কপ্যাট্রিকের কথায়, ‘ফেসবুক হয়তো অদূর ভবিষ্যতেই কোল্যাপ্সড করে যাবে৷’ একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাত্‍‌কারে কির্ক বলেছেন, ‘অবস্থা এমনই পর্যায়ে যাচ্ছে, যে বিজ্ঞাপনদাতারা ফেসবুক থেকে মুখ ঘুরিয়ে নেবে৷ এক লহমায় ধসে যাবে এই সাইট৷ বন্ধও হয়ে যেতে পারে৷’

বর্তমানে বিভিন্ন সংস্থার বিজ্ঞাপনের অন্যতম মাধ্যম ফেসবুক হলেও, ভুল তথ্য বা ফেক নিউজের রমরমায় সংস্থাগুলির স্বার্থে আঘাত লাগছে৷ সম্প্রতি মেসেঞ্জারে বেশ কিছু পরিবর্তনের কথা ঘোষণা করেছে ফেসবুক৷ এই পরিবর্তনেও কিছু তাত্‍‌পর্যপূর্ণ ইঙ্গিত পাচ্ছেন তথ্যপ্রযুক্তি বিজ্ঞানীরা৷ তবে একটি সমীক্ষা বলছে, ফেসবুক-এর থেকে ইন্সস্টাগ্রামেই বেশি ঝুঁকছে এই প্রজন্ম৷ প্রথমে ফেসবুক কর্তাদের প্ল্যান ছিল, বন্ধ না করে আরও কিছু ফিচার যোগ করা ফেসবুকে৷ কিন্ত‌ু গত কয়েক মাসে ফেসবুক-এর ভাবমূর্তি খুব খারাপ হয়ে গিয়েছে৷ যার অন্যতম কারণ, ডেটা লিক৷ তাই হঠাত্‍‌ যদি বন্ধ হয়ে যায় ফেসবুক, তা আশ্চর্যের হবে না৷ তাহলে সত্যি কি ফেসবুক বন্ধ হয়ে যাবে! উত্তরটা সময় দেবে৷

Spread the love