শাড়িতেও হয়ে ওঠা যায় আধুনিকা

Life24 Desk   -  

শাড়িতেই বাঙালি নারীর আকর্ষণ চিরন্তন। বাঙালি নারীর শারীরিক গঠনের সঙ্গে শাড়ির একটা সামঞ্জস্য রয়েছে। তাই বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মেয়েদের প্রথম পছন্দ শাড়ি। সেইসঙ্গে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের কথা মাথায় রেখে শাড়ি পরার ধরন-ধারণও বেশ চোখে পড়ার মতো। ঋতু অনুযায়ীও শাড়ি পরার কিছু আলাদা বিশেষত্ব রয়েছে।

তবে বর্তমান প্রজন্মের অনেক মেয়েরা শিফন শাড়িই বেশি পছন্দ করেন। শিফন শাড়ির প্রচলন বেশ পুরনো। হালকা এবং নরম হওয়ার কারণেই এই শাড়ি বেশ আরামদায়ক। তাছাড়া হালকা থেকে শুরু করে ভারী কাজ করা বিভিন্ন ধরনের শিফন শাড়ি বাজারে পাওয়া যায়। তাই অনুষ্ঠান এবং উপলক্ষ ভেদে শিফন শাড়ি বেছে নেওয়া যেতেই পারে।

এই শাড়ি খুব সহজেই পড়া যায়। শিফন শাড়ির সঙ্গে ব্লাউজ বাছাইয়ে কিছুটা সচেতন হলেই মাধুর‌্য বেড়ে যায়। এক্ষেত্রে কনট্রাস্ট ব্লাউজ এড়িয়ে চলাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। তাই শাড়ির রংয়ের সঙ্গে মিলিয়ে ব্লাউজ বেছে নেওয়া যেতে পারে।

শিফন শাড়ির সঙ্গে স্বাভাবিক ব্লাউজের তুলনায় কিছুটা লম্বা হাতার ব্লাউজ বানানো যেতে পারে। এছাড়া ছোট হাতার বদলে থ্রি-কোয়াটার হাতা শিফন শাড়ির সঙ্গে বেশ মানানসই। এতে নিজের আব্রুতা বজায় থাকে।

তাছাড়া শিফন শাড়ির সঙ্গে পরার পেটিকোটের কাপড় এবং পেটিকোটের ডিজাইন বাছাইয়ের ক্ষেত্রেও একটু সচেতন হওয়া উচিত। শিফন শাড়ির পেটিকোট হওয়া চাই ভারী কাপড়ের। তাছাড়া সাধারণ ফিস কাটের পেটিকোটের বদলে ছয় ছাট বা কোলি করা পেটিকোট পরলে সুবিধা হয়। আর যাঁরা লম্বা তাঁরা কিছুটা চওড়া পাড় এবং যাঁদের উচ্চতা কম তাঁরা চিকন পাড়ের শাড়ি বেছে নিতে পারেন।

পাশাপাশি অ্যাপলিক করা শিফন শাড়ি বেশ ভারী হয়। যাঁদের শিফন শাড়ি পরার ইচ্ছে রয়েছে তাঁরা এই ধরনের শাড়ি পরে দেখতে পারেন। তবে  বাঙালির ঐতিহ্যের তুলনায় শিফন শাড়ি কিছুটা ভিন্ন। তাই অনেকে এটিকে ওয়েস্টার্ন স্টাইলও বললেও দেশীয় সাজ আর গহনার সঙ্গে শিফন শাড়িও মানিয়ে নেওয়া যেতে পারে।

দেশি হোক বা ওয়েস্টার্ন যে কোনও ক্ষেত্রেই পরিমিতি বোধ থাকা জরুরি। যেমন কানে ভারী দুল বা ঝুমকো পরলে, গলায় হার বা নেকলেস এড়িয়ে চলা উচিত। আবার ভারী কাজের ব্লাউজের সঙ্গেও গলায় ভারী গয়না বেমানান। আর হালকা ব্লাউজের সঙ্গে গলায় ভারী হার পরলে কানে ছোট টপ পরাই বেশি মানানসই। আর মেকআপও পরিমিত হওয়া প্রয়োজন। গাঢ় রংয়ের শাড়ি এবং ভারী গয়নার সঙ্গে হালকা বা নু্যড শেডের মেকআপ বেশি মানানসই। শাড়ির রং ও মেকআপ একই রকম গাঢ় হলে দেখতে বেমানান লাগে।

শিফন বিদেশি কাপড় হলেও শিফনে তৈরি শাড়ি বা অন্যান্য পোশাক দেশীয় বাজারে পেতে কোনও সমস্যায় পড়তে হয় না। তাছাড়া অনলাইনেও এখন এই শাড়ির অফুরন্ত সম্ভার। তবে শিফন ও জর্জেট শাড়ির মধ্যে পার্থক্য করতে গিয়েই বেশিরভাগেরই ভুল হয়ে থাকে। তাই কাপড় ধরে ভালোভাবে পরীক্ষা করেই শাড়ি কেনা উচিত। জর্জেট কাপড় কিছুটা মোটা এবং খসখসে। আর শিফন শাড়ি সেই তুলনায় বেশ পাতলা এবং নরম ধরনের হয়।

Spread the love

আপনার প্রিয় ওয়েব ম্যাগাজিন ‘Life24’-এ আপনিও লিখতে পারেন এই ম্যাগাজিনের উপযুক্ত যে কোনও লেখা। লেখার সঙ্গে পাঠাবেন উপযুক্ত ২-৩টি ফটো। লেখা পাঠাবেন ইউনিকোডে টাইপ করে। ইউনিকোড ছাড়া কোনও লেখাই গ্রহণ করা হবে না। লেখা ও ফটো পাঠাবেন editor.life24@gmail.com আইডি-তে। কোন সেগমেন্টের লেখা পাঠাচ্ছেন, তা মেলের সাবজেক্টে অবশ্যই লিখে দেবেন। আর অবশ্যই মেলে আপনার নাম, ঠিকানা ও ফোন নম্বর জানাবেন।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে খুব কম খরচে আপনার পণ্য কিংবা সংস্থার বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। বিস্তারিত জানার জন্য মেল করুন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে ৩১ মার্চ পর্যন্ত আপনি একেবারেই বিনামূল্যে দিতে পারবেন শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন। এই বিভাগের যে কোনও সেগমেন্টের জন্য ৫০ শব্দের মধ্যে ইউনিকোডে লিখে মেল করে দিন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।  মেলের সাবজেক্টে লিখে দেবেন 'শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন'।

# 'Life24' ওয়েব ম্যাগাজিন বা এই ওয়েব ম্যাগাজিনের লেখা সম্পর্কে আপনার মতামত লিখে জানান নিচের কমেন্ট বক্স-এ। আর হ্যাঁ, ম্যাগাজিনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার পরিচিতদের।