নাবালিকাকে গণধর্ষণের পর খুনের অভিযোগ উঠল প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে

Life24 Desk   -  

১৬ জানুয়ারি এক নাবালিকাকে গণধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ ওঠে তিন প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি মানিকচক এলাকার। মানিকচক থানায় ওই তিন প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে FIR–ও করেছেন মৃতের মা। নাবালিকার মা বলেন যে তাঁর তিন মেয়ে। তাঁর স্বামী পেশায় শ্রমিক। তিনি কর্মসূত্রে ভিনরাজ্যে থাকেন। ১৬ জানুয়ারি দুপুরে তিনি তাঁর অপর দুই মেয়েকে নিয়ে হাটে গিয়েছিলেন। বড় মেয়ে বাড়িতে ছিল। সেসময় তিন প্রতিবেশী তাঁর বড় মেয়েকে গণধর্ষণ করে। তারপর মেয়ের গলায় ওড়না পেঁচিয়ে খুন করে সিলিংফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে দেয়।

ময়নাতদন্তের রিপোর্টেও গণধর্ষণ করে খুনের উল্লেখ রয়েছে। তিনি তিন প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। মহিলার অভিযোগ, স্থানীয় থানা কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। এমনকি পুলিশ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ধারায় মামলা করেনি। তাদের গ্রেপ্তারও করেনি। অভিযুক্তরা ১৮ জানুয়ারি তাঁর বাড়িতে এসে আগুন ধরিয়ে দেয়। তিনি সেই ঘটনাতেও পুলিশ অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু তারপরও পুলিশ কোনও ব্যবস্থা না নেওয়ায় তিনি পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ হন। পুলিশ সুপারকে বিষয়টি জানালেও কোনও কাজ হয়নি। দেড় মাস পেরিয়ে গেলেও সেখানে থেকেও তিনি কোনও সাহায্য পাননি। উলটে অভিযুক্তরা তাঁর অপর দুই মেয়েকেও একইভাবে খুন করবে বলে হুমকি দিচ্ছেন। ওদের ভয়ে মেয়েদের নিয়ে তিনি এক আত্মীয়ের বাড়িতে লুকিয়ে আছেন। নিরুপায় হয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে তিনি মালদা জেলা আদালতের দ্বারস্থ হন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে যে গতকাল মালদা জেলা আদালতের মুখ্য দায়রা বিচারক রিনজি ডোমা লামা এই নির্দেশ দেন যে মানিকচকে গণধর্ষণ করে খুনের ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলায় উপযুক্ত ধারা যোগ করার নির্দেশ দেয় আদালত। অপরাধের গুরুত্ব বিচার করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দায়ের মামলায় উপযুক্ত ধারা যোগ করার জন্য বিচারক নির্দেশ দিয়েছে পুলিশকে।

অভিযোগকারীর আইনজীবী প্রতীক ভৌমিক জানিয়েছেন জমি বিবাদের জেরেই এই ঘটনা ঘটিয়েছে অভিযুক্তরা। এক্ষেত্রে মানিকচক থানার পুলিশের ভূমিকা অসন্তোষজনক। অভিযুক্তরা তাঁর মক্কেল ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের হুমকিও দিয়েছেন। তাঁর মক্কেলের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছেন। এব্যাপারে পুলিশ সুপারের কাছে আবেদন জানিয়েও কোনও সাহায্য পায়নি তাঁর মক্কেল। অগত্যা তিনি সুবিচার আশায় গতকাল জেলা আদালতের দ্বারস্থ হন। এবং বিচারপতি নির্দেশও দেয়।

Spread the love

আপনার প্রিয় ওয়েব ম্যাগাজিন ‘Life24’-এ আপনিও লিখতে পারেন এই ম্যাগাজিনের উপযুক্ত যে কোনও লেখা। লেখার সঙ্গে পাঠাবেন উপযুক্ত ২-৩টি ফটো। লেখা পাঠাবেন ইউনিকোডে টাইপ করে। ইউনিকোড ছাড়া কোনও লেখাই গ্রহণ করা হবে না। লেখা ও ফটো পাঠাবেন editor.life24@gmail.com আইডি-তে। কোন সেগমেন্টের লেখা পাঠাচ্ছেন, তা মেলের সাবজেক্টে অবশ্যই লিখে দেবেন। আর অবশ্যই মেলে আপনার নাম, ঠিকানা ও ফোন নম্বর জানাবেন।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে খুব কম খরচে আপনার পণ্য কিংবা সংস্থার বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। বিস্তারিত জানার জন্য মেল করুন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে ৩১ মার্চ পর্যন্ত আপনি একেবারেই বিনামূল্যে দিতে পারবেন শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন। এই বিভাগের যে কোনও সেগমেন্টের জন্য ৫০ শব্দের মধ্যে ইউনিকোডে লিখে মেল করে দিন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।  মেলের সাবজেক্টে লিখে দেবেন 'শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন'।

# 'Life24' ওয়েব ম্যাগাজিন বা এই ওয়েব ম্যাগাজিনের লেখা সম্পর্কে আপনার মতামত লিখে জানান নিচের কমেন্ট বক্স-এ। আর হ্যাঁ, ম্যাগাজিনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার পরিচিতদের।