আদা চাষ করে লাভের মুখ দেখছেন চাষিরা

Life24 Desk   -  

শুধু রান্নার মশলা হিসাবেই নয়, আদা ব্যবহৃত হয় ওষুধ প্রস্তুতিতেও। বাজারে আদার দাম ও চাহিদা সবসময়ই বেশ ভালো থাকে। ফলে আদার চাষ করে কৃষকরা সহজেই লাভের মুখ দেখতে পারেন।

উষ্ণ ও আর্দ্র আবহাওয়া ও যেখানে জলসেচের সুব্যবস্থা আছে এমন জায়গা আদা চাষের জন্য উপযুক্ত। আদা চাষের জন্য বৈশাখ মাসের প্রথম বৃষ্টিতেই জমি তৈরির কাজ শুরু করতে হবে। জমির আগাছা পরিষ্কার করে ৪-৫ বার লাঙল ও মই দিয়ে মাটি সমান করে নিতে হবে। তারপর এক মিটার চওড়া ও ১৫ সেন্টিমিটার উঁচু করে জমির ঢাল বরাবর লম্বা লম্বা বেড তৈরি করে নিতে হবে। চাষের ২৫ থেকে ৩০ দিন আগে প্রতি বিঘায় তিন-চার টন গোবর সার দিতে হবে। আর জমি তৈরির পর তিন কেজি নাইট্রোজেন, ৬ কেজি ফসফেট ও ৩ কেজি পটাশ সার দিতে হবে। এরপর ২.৫ থেকে ৫ সেন্টিমিটার লম্বা, ২০ থেকে ২৫ গ্রামের ভালো চোখওয়ালা কন্দ লাগাতে হবে। আদা চাষের জন্য প্রতি বিঘায় ২০০ থেকে ২৫০ কেজি বীজকন্দ লাগবে। সাধারণত ৩০ সেমি X ২০ সেমি বা ৩০ সেমি X ১৫ সেমি ছাড়া ছাড়া আদা বসানো উচিত।

এছাড়া আদা চাষের জমিতে জৈব পদার্থ দেওয়ার পাশাপাশি নিয়মিত আগাছা পরিষ্কার করে জমি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে এবং  নিকাশি ও সেচের নালা পরিষ্কার রাখতে হবে। সময় মতো আদা গাছের গোড়ায় মাটি ধরাতে হবে। উন্নত জাতের আদাগুলি হল- সুপ্রভা, সুরুচি, পিসিএস-১৯ ইত্যাদি।

Spread the love

আপনার প্রিয় ওয়েব ম্যাগাজিন ‘Life24’-এ আপনিও লিখতে পারেন এই ম্যাগাজিনের উপযুক্ত যে কোনও লেখা। লেখার সঙ্গে পাঠাবেন উপযুক্ত ২-৩টি ফটো। লেখা পাঠাবেন ইউনিকোডে টাইপ করে। ইউনিকোড ছাড়া কোনও লেখাই গ্রহণ করা হবে না। লেখা ও ফটো পাঠাবেন editor.life24@gmail.com আইডি-তে। কোন সেগমেন্টের লেখা পাঠাচ্ছেন, তা মেলের সাবজেক্টে অবশ্যই লিখে দেবেন। আর অবশ্যই মেলে আপনার নাম, ঠিকানা ও ফোন নম্বর জানাবেন।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে খুব কম খরচে আপনার পণ্য কিংবা সংস্থার বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। বিস্তারিত জানার জন্য মেল করুন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে ৩১ মার্চ পর্যন্ত আপনি একেবারেই বিনামূল্যে দিতে পারবেন শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন। এই বিভাগের যে কোনও সেগমেন্টের জন্য ৫০ শব্দের মধ্যে ইউনিকোডে লিখে মেল করে দিন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।  মেলের সাবজেক্টে লিখে দেবেন 'শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন'।

# 'Life24' ওয়েব ম্যাগাজিন বা এই ওয়েব ম্যাগাজিনের লেখা সম্পর্কে আপনার মতামত লিখে জানান নিচের কমেন্ট বক্স-এ। আর হ্যাঁ, ম্যাগাজিনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার পরিচিতদের।