গবেষকরা বলছেন সুখী বিয়ে মানেই সুস্বাস্থ্যের আশ্বাস

Life24 Desk   -  

বিয়ে মানেই কিন্তু বাড়িভর্তি লোকজন, কেনাকাটা, সাজগোজ, ধুমধাম, আনুষ্ঠানিকতা নয়। বিয়ে মানে এসব কিছুকে ছাপিয়ে দুটো মানুষের সুখেদুঃখে পরস্পরের পাশে থাকার আশ্বাস। বিয়ে মানে যতটা মন, ততটাই শরীর। মনে রাখবেন সুখী বিয়ে মানেই সুস্বাস্থ্যের আশ্বাস। তাই জেনেনিন সুখী বিয়ের কারণে আপনার স্বাস্থ্যের কী কী সুফল হতে পারে!

নিম্নমুখী স্ট্রেস- কার্নেগি মেলন ইউনিভার্সিটির একটি সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে, বিবাহিত ব্যক্তিদের শরীরে কর্টিসল নামের স্ট্রেস হরমোনটি অনেক কম থাকে। কর্টিসলের মাত্রা দীর্ঘদিন ধরে বেশির দিকে থাকলে একাধিক লাইফস্টাইলগত রোগ ধরে ফেলবে আপনাকে।

ক্যান্সার থেকে নিরাময়- বিশ্বাস হচ্ছে না? ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটির একটি গবেষণায় দেখা গেছে বিবাহিত দম্পতিদের কেউ ক্যান্সার আক্রান্ত হলে তাঁর সুস্থ হয়ে ওঠার সম্ভাবনা অবিবাহিত বা একা মানুষদের চেয়ে বেশি! একনজরে দেখলে এর পিছনে যুক্তি খুঁজে পাবেন না অনেকে। আসলে এ ব্যাপারটার সামাজিক দিকটা ভেবে দেখা দরকার। যৌথ চিকিত্সাবিমা, যৌথ রোজগারের কারণে টাকাপয়সার স্বাচ্ছল্য স্বাভাবিকভাবেই বেশি, ফলে বিবাহিতদের সুচিকিত্সার সুযোগও বেশি। তা ছাড়া আত্মীয়বন্ধুদের সাহচর্য, যত্নও তাঁরা বেশি পান। একা মানুষদের কিন্তু সবসময় সেই সাপোর্ট সিস্টেম থাকে না!

হৃদরোগ থেকে সুরক্ষা- ফিনল্যান্ডের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা জানাচ্ছেন, বিবাহিত মহিলাদের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা শতকরা ৬৫ ভাগ কম। এ ক্ষেত্রেও কর্টিসলের ভূমিকা রয়েছে। সুখী বিয়েতে স্ট্রেসের পরিমাণ কম, তাই কর্টিসলও কম। ফলে শুধু হৃদরোগই নয়, কর্টিসলের সঙ্গে জড়িত নানা রোগ এড়ানো সহজেই সম্ভব।

মানসিক সুস্থতা- এবার শরীরের গণ্ডি ছাড়িয়ে একটু মনের দিকে যাওয়া যাক! সুস্থ শরীরের পিছনে সুস্থ মনের ভূমিকাও অনেকটাই। বিয়ে সুখের হলে ডিপ্রেশনের মতো মনের অসুখ আপনার ধারেপাশে ঘেঁষতে পারবে না। অতএব নির্ভয়ে বিয়ে করুন, চেষ্টা করুন বিয়েটাকে সুখী করতে আর উপভোগ করুন জমজমাট একটা জীবন৷

Spread the love