ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে বাহারি কুশনের ব্যবহার

Life24 Desk   -  

বসার ঘরের সোফায়, বিছানায় কিংবা ঘরের কোণে শুধুই সাজিয়ে রাখতে এখন অনেকেই ছোট বালিশ ব্যবহার করেন। কুশন নামে পরিচিত এই ধরনের বালিশ আগে বড় মার্কেটগুলোতে পাওয়া গেলেও এখন ছোটখাটো মার্কেট থেকে শুরু করে বিভিন্ন বুটিকের দোকানগুলোতেও রাখা হচ্ছে বিক্রির জন্য।

শুধু কুশন কিনলেই হবে না, হাল ফ্যাশনের কথা চিন্তা করে কিনতে হয় এর মোড়ক, অর্থাত কভার। হঠাত মাথায় এলো কুশন দিয়ে ঘর সাজাব। যেই কথা সেই কাজ! বেরিয়ে পড়লেন কুশন আর কভার কিনতে! তাহলে একটু থামুন, কুশন কেনার আগে ঠিক করে নিন ঘরের কোন কোন অংশে আপনি কুশন দিয়ে সাজাবেন। পাশাপাশি সোফা বা বিছানা অনুযায়ী কুশনের মাপ বুঝে নিতে ভুলবেন না। আবার একই মাপের অনেক কুশন না কিনে বিভিন্ন মাপের কিনতে পারেন। এছাড়া কাভার কেনার সময় ঘরের দেওয়াল, পর্দা এসবের রংয়ের সঙ্গে মানানসই কুশন কাভার কিনলে মানায় বেশি।

সবকথা মাথায় রেখে কিনে আনলেন কুশন। এখন কোথায় কীভাবে রাখবেন?

কোয়ালিটি, রং এবং আকৃতির উপর নির্ভর করে কোথায় কেমন কুশন ব্যবহার করবেন সেটা আগে জেনে রাখা ভালো। বিছানায় ব্যবহারের জন্য একটু ছোট কুশন ঘরের এবং বিছানার সৌন্দর্য বাড়াতে সহায়ক হবে। আর সোফা কিংবা ডিভানের জন্য কিনতে পারেন বড় কুশন। তবে এক্ষেত্রে সোফার মাপ মাথায় রাখাটা আবশ্যক।

বাচ্চাদের ঘর সাজাতে বিভিন্ন রংয়ের নানান আকৃতির কুশন রাখলে ছোটরা মজা পাবে বেশি। এক্ষেত্রে পুতুল বা বিভিন্ন কার্টুনের আকৃতির কুশন এখন বেশ বিক্রি হচ্ছে। লম্বাটে জায়গায় বালিশ আকৃতির কুশন ভালো মানায়।

কম্পিউটার বা পড়ার ঘরের চেয়ারে কোণাকুণি রাখুন কুশন। লিভিং রুমের একপাশের মেঝেতে ম্যাট বিছিয়ে দেওয়াল ঘেঁষে রাখতে পারেন নানা আকৃতি ও রংয়ের কুশন। তবে এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই দেখতে হবে মানানসই হয়েছে কিনা। ড্রয়িংরুমে ডিভান থাকলে ৩-৪ আকৃতির মিশেলে কুশন ব্যবহার করা যেতে পারে। অনেকেই এখন  ডাইনিং রুমের জন্য ফল আকৃতির কুশন ব্যবহার করে থাকেন। পাশাপাশি ফুলপাতাসহ বিভিন্ন রংবেরংয়ের কুশন ব্যবহার করলে ভালো লাগে। গাড়ির ভেতরে আরাম করতে ও সাজসজ্জার জন্য এখন অনেকেই কুশন ব্যবহার করে থাকেন। এসব ক্ষেত্রে সিল্ক অথবা ভারি কাজ করা কুশন ব্যবহার করলে ভালো হয়।

কুশন তৈরির কাপড়টাও তো ভালো হওয়া চাই। এতে কুশন অনেকদিন পর্যন্ত ভালো থাকবে। বাজারে অনেক ধরনের কাপড়ের কুশন কভার হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে একটু ভালো মানের কাপড় পছন্দ করা উচিত। এতে দামটা বেশি পড়লেও টেকসই হবে দীর্ঘদিন। এছাড়া হাতে যদি সময় থাকে তাহলে নিজেই তৈরি করে নিতে পারেন পছন্দ অনুযায়ী কাভার। এক্ষেত্রে হাতে সূচ ও সুতোর মাধ্যমে সেলাই করে নিতে পারেন বিভিন্ন নকশা। কুশনের কভারে আলাদা কাপড় ডিজাইন অনুযায়ী কেটে লাগিয়ে দিলে বৈচিত্র পাওয়া যাবে। হাতে সেলাই করার সময় আলাদা কাচ লাগিয়ে দিলে আপনার কুশন কভার হবে আকর্ষণীয়।

 

 

Spread the love

আপনার প্রিয় ওয়েব ম্যাগাজিন ‘Life24’-এ আপনিও লিখতে পারেন এই ম্যাগাজিনের উপযুক্ত যে কোনও লেখা। লেখার সঙ্গে পাঠাবেন উপযুক্ত ২-৩টি ফটো। লেখা পাঠাবেন ইউনিকোডে টাইপ করে। ইউনিকোড ছাড়া কোনও লেখাই গ্রহণ করা হবে না। লেখা ও ফটো পাঠাবেন editor.life24@gmail.com আইডি-তে। কোন সেগমেন্টের লেখা পাঠাচ্ছেন, তা মেলের সাবজেক্টে অবশ্যই লিখে দেবেন। আর অবশ্যই মেলে আপনার নাম, ঠিকানা ও ফোন নম্বর জানাবেন।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে খুব কম খরচে আপনার পণ্য কিংবা সংস্থার বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। বিস্তারিত জানার জন্য মেল করুন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে ৩১ মার্চ পর্যন্ত আপনি একেবারেই বিনামূল্যে দিতে পারবেন শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন। এই বিভাগের যে কোনও সেগমেন্টের জন্য ৫০ শব্দের মধ্যে ইউনিকোডে লিখে মেল করে দিন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।  মেলের সাবজেক্টে লিখে দেবেন 'শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন'।

# 'Life24' ওয়েব ম্যাগাজিন বা এই ওয়েব ম্যাগাজিনের লেখা সম্পর্কে আপনার মতামত লিখে জানান নিচের কমেন্ট বক্স-এ। আর হ্যাঁ, ম্যাগাজিনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার পরিচিতদের।