মুনমুন কাজ না করার কারণে বাঁকুড়ায় লকেটের টিকিট অনিশ্চিত

Life24 Desk   -  

মুনমুন সেনকে নিয়ে সন্তুষ্ট নন বাঁকুড়ার লোকেরা। এর ফলে তাঁকে ওই কেন্দ্রে আর টিকিটই দিতে পারেননি তৃণমূল। তাঁকে পাঠিয়ে দিতে হয়েছে আসানসোলে। মুনমুন সেনের বাঁকুড়ায় ভালো কাজ না করার বিষয়টি বিজেপির সুবিধা করে দেবে বলে অনেকে মনে করেছিলেন। কিন্তু এখন উল্টো ছবি। রাজ্য বিজেপির একটি অংশের দাবি, লকেট চট্টোপাধ্যায় উৎসাহী ছিলেন বাঁকুড়া আসনটি নিয়ে। কিন্তু মুনমুন সেন কোনও কাজ করেনি বাঁকুড়াতে। তার ফলে লকেট বাঁকুড়াতে দাঁড়ালে মানুষ কতটা নেবে সেই বিয়য়ে প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে।  কার্যকলাপই লকেটের পথে কাঁটা বিছিয়ে দিয়েছে।

২০০৯ সালে রাজ্যজুড়ে বামবিরোধী হাওয়া থাকা সত্ত্বেও বাঁকুড়ায় জিততে পারেননি সুব্রত মুখোপাধ্যায়।  ২০১৪ সালে সেই বাঁকুড়াতেই মুনমুন জিতে যান। কয়েক দশক ধরে বাঁকুড়ার দখল ধরে রাখা সিপিএম নেতা বাসুদেব আচারিয়াকে হারান মুনমুন। পাঁচ বছরের মেয়াদে মুনমুন সেনকে কত বার দেখা গিয়েছে তাঁর নির্বাচনী ক্ষেত্রে? হিসেব করতে গিয়ে একটু অসুবিধায় পড়েন বাঁকুড়ার তৃণমূল নেতা-কর্মীরা। বাঁকুড়াবাসী ঠিক কোন কোন সমস্যায় মুনমুনকে পাশে পেয়েছেন? সাধারণ ভোটদাতাদের কথা দূরে থাক, বাঁকুড়ার তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে মুনমুন সেনের সরাসরি যোগাযোগ গড়ে উঠেছিল কি? দলের হয়ে ক’টা রাজনৈতিক কর্মসূচির আয়োজন মুনমুন করেছেন? ক’টা কর্মসূচিতে তাঁকে নেতৃত্ব দিতে দেখা গিয়েছে? নিজের লোকসভা কেন্দ্রে কার বিপদে-আপদে মুনমুন সেনকে ছুটে যেতে দেখা গিয়েছে? এই প্রশ্নগুলো উঠতে শুরু করেছিল তৃণমূলের অন্দরেই। সেই কারণেই যে দ্বিতীয় বার মুনমুনকে বাঁকুড়ায় প্রার্থী করার পথে হাঁটেনি দল, সে কথা স্পষ্ট করে বলা না হলেও রাজনৈতিক শিবিরের বুঝতে অসুবিধা হয়নি।

কিন্তু বিদায়ী তৃণমূল সাংসদ মুনমুন সেনের এই ‘সুনাম’ কী ভাবে সমস্যা তৈরি করছে বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়ের সামনে? রাজ্য স্তরের এক বিজেপি নেতার কথায়, ‘‘লকেট চট্টোপাধ্যায় এখন দলের সামনের সারির নেত্রী। ফলে লোকসভা নির্বাচনে তাঁর প্রার্থী হওয়া নিয়েও নানা স্তরে চর্চা হয়েছে। সে সব চর্চায় এটুকু বোঝা গিয়েছিল যে, যদি লড়তেই হয়, তা হলে বাঁকুড়া আসন থেকে লড়তেই বেশি আগ্রহী উনি।

বিজেপি মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় বলছেন, ‘‘দল আমাকে শিখিয়েছে, আগ বাড়িয়ে নিজের ইচ্ছা প্রকাশ না করতে। দল যখন যে দায়িত্ব দেবে, তখন সেটাই পালন করার জন্য প্রস্তুত থাকতে শিখিয়েছে। সুতরাং ভোটে দাঁড়াব, কি দাঁড়াব না, সেটাও দলই ঠিক করবে।’

Spread the love

আপনার প্রিয় ওয়েব ম্যাগাজিন ‘Life24’-এ আপনিও লিখতে পারেন এই ম্যাগাজিনের উপযুক্ত যে কোনও লেখা। লেখার সঙ্গে পাঠাবেন উপযুক্ত ২-৩টি ফটো। লেখা পাঠাবেন ইউনিকোডে টাইপ করে। ইউনিকোড ছাড়া কোনও লেখাই গ্রহণ করা হবে না। লেখা ও ফটো পাঠাবেন editor.life24@gmail.com আইডি-তে। কোন সেগমেন্টের লেখা পাঠাচ্ছেন, তা মেলের সাবজেক্টে অবশ্যই লিখে দেবেন। আর অবশ্যই মেলে আপনার নাম, ঠিকানা ও ফোন নম্বর জানাবেন।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে খুব কম খরচে আপনার পণ্য কিংবা সংস্থার বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। বিস্তারিত জানার জন্য মেল করুন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে ৩১ মার্চ পর্যন্ত আপনি একেবারেই বিনামূল্যে দিতে পারবেন শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন। এই বিভাগের যে কোনও সেগমেন্টের জন্য ৫০ শব্দের মধ্যে ইউনিকোডে লিখে মেল করে দিন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।  মেলের সাবজেক্টে লিখে দেবেন 'শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন'।

# 'Life24' ওয়েব ম্যাগাজিন বা এই ওয়েব ম্যাগাজিনের লেখা সম্পর্কে আপনার মতামত লিখে জানান নিচের কমেন্ট বক্স-এ। আর হ্যাঁ, ম্যাগাজিনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার পরিচিতদের।