শপিংয়ে খরচ কমানোর কিছু টিপস

Life24 Desk   -  

শপিং করতে কার না ভালো লাগে। বেশিরভাগপ মহিলারাই শপিং করেন খুব আনন্দ করে। কিন্তু বেশিরভাগ সময়ই শপিং করতে গেলেন একটা-দুটো জিনিসের জন্য, আর ঘরে ফিরলেন হাত ভর্তি ব্যাগ নিয়ে- এমনটাই হয়। কেউ এই সমস্যা এড়াতে কী কী লাগবে তার তালিকা করে নেন, কেউ বা কম টাকা রাখেন ওয়ালেটে। এত কিছুর পরেও শেষ রক্ষা হয় না, অনেকগুলো টাকা খরচ হয়েই যায়।  তাহলে উপায়?

১) সুন্দর করে সাজানো দোকান এড়িয়ে চলুন

রঙিন আলো দিয়ে সাজানো দোকান থেকে দূরে থাকুন। সুসজ্জিত দোকানে খরচ বেশি করতে ইচ্ছে হবে আপনার। এছাড়া ওইসব দোকানে ড্যামি পুতুলকে সাধারণত সেসব পোশাকই পরানো থাকে যেগুলোর দাম অনেক বেশি।

২) হাই-হিল জুতো পরে শপিং করুন

সাম্প্রতিক অদ্ভুত এক গবেষণায় দেখা গেছে, শরীরের ভারসাম্য রক্ষায় মনোযোগ দিলে শপিংয়ে খরচ কম হয়। এ কারণে হাই হিল জুতো পরা, এসকেলেটর ব্যবহার করা এমনকি ব্যায়ামের পর শপিং করলেও বেশি খরচ এড়ানো যায়।

৩) নতুন টাকা ব্যবহার করুন

কচকচে নতুন টাকায় ভরে আছে মানিব্যাগ! স্বাভাবিকভাবেই এই টাকা খরচ করতে ইচ্ছে করবে না। এ কারণে কার্ড বা পুরনো মলিন টাকার বদলে নতুন টাকা মানিব্যাগে রাখুন। এতে খরচের হিসেব মাথায় থাকে।

৪) বিরতি নিন

ব্র্যান্ডের জুতো বা ব্যাগ পছন্দ হয়ে গেছে, খরচ হবে অনেকটা টাকা। এমন অবস্থায় হুট করে জিনিসটা কিনে ফেলবেন না। দোকান থেকে বের হয় অন্য কোথাও বসুন, নিজেকে ভাবার সময় দিন। আসলেই কি এই জিনিসটা আপনার দরকার? এখনই দরকার? কীভাবে এই জিনিসটা ব্যবহার করবেন? এসব প্রশ্ন নিয়ে ভাবলে অনেক সময়েই দেখবেন, জিনিসটার পেছনে এতগুলো টাকা খরচের ইচ্ছে উবে গিয়েছে।

৫) দোকানের সংখ্যা কমিয়ে ফেলুন

শপিংয়ে যাবার আগেই ঠিক করে ফেলুন, আপনি পোশাকের জন্য দুইটি দোকানের যাবেন, জুতোর জন্য দুইটি দোকানে যাবেন, ব্যাগ এবং প্রসাধনীর জন্য একটি দোকানে যাবেন- ইত্যাদি। অতিরিক্ত কোনো দোকানে না গেলে অতিরিক্ত কেনাকাটার কথা মাথাতেও আসবে না।

৬) সেলের সময়ে কেনাকাটায় সতর্ক থাকুন

২০ শতাংশ বা ৫০ শতাংশ ছাড় চলছে- দেখেই অনেকের চোখ ছানাবড়া হয়ে যায়। কিন্তু এই খুশিতে কেনাকাটা করতে গিয়ে বাজেটের বাইরে চলে যায় খরচ। এ ব্যাপারটি নিজে সতর্ক থাকুন। সেলের সময়ে কেনাকাটা করা ভালো, তবে অবশ্যই অপ্রয়োজনীয় কিছু কিনবেন না।

৭) সেলসম্যান বা সেলসগার্লের সাথে আড্ডা দেবেন না

দোকানে সেলসম্যান বা সেলসগার্ল থাকে একটি মাত্র কারণে, আর তা হলো বিক্রি বাড়ানো। তারা আপনার সাথে কথা বলে বিভিন্ন উপায়ে আপনাকে বোঝানোর চেষ্টা করবে সেই দোকান থেকে বেশি জিনিস কিনলে আপনারই ভালো। তাদের কথায় গলে গিয়ে অনেকেই অতিরিক্ত কেনাকাটা করে ফেলেন।  দোকানে গিয়ে সেলসম্যানের সাথে বেশি কথা বলবেন না।

Spread the love