লুক আউট নোটিস জারি হয় তিন জনের নামে

Life24 Desk   -  

ভিডিয়োকন গোষ্ঠীকে আইসিআইসিআই ব্যাঙ্কের ১,৮৭৫ কোটি টাকা ঋণ দেওয়ার সময়ে অনিয়ম হয়েছিল বলে অভিযোগ  ওঠে প্রাক্তন কর্ণধার চন্দা কোছর ও তাঁর স্বামী দীপক কোছরের বিরুদ্ধে। জেরার জন্য দিল্লিতে ডেকে পাঠাল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি। ব্যাঙ্ক ঋণ জালিয়াতির মামলায় বেআইনি লেনদেন সংক্রান্ত তদন্তে তাঁদের ডাকা হয়েছে। গত সপ্তাহে তাঁদেরকে সমন পাঠিয়েছিল তদন্তকারী সংস্থাটি।

এর তদন্তে নেমে চলতি বছরের শুরুতে পিএমএলএ-র আওতায় চন্দা, দীপক, ভিডিয়োকন কর্ণধার বেণুগোপাল ধুত ও অন্যদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করেছিল সিবিআই। তাদের দায়ের করা এফআইআরের ভিত্তিতেই গত ১ মার্চ মুম্বইয়ে চন্দা, দীপককে জেরা করেছিল ইডি। মুম্বই ও ঔরঙ্গাবাদে তাঁদের ও তাঁদের পরিবার এবং ভিডিয়োকন গোষ্ঠীর কর্ণধার বেণুগোপাল ধুতের অফিস ও বাড়িতে তল্লাশিও চালানো হয়েছিল।তবে কোনও কিছু বাজেয়াপ্ত বা উদ্ধার করা হয়েছে কি না, তা রাত পর্যন্ত জানা যায়নি।

ইডি জানায় যে কালো টাকা লেনদেন প্রতিরোধ আইনের বা পিএমএলএ আওতায় জবানবন্দি দিতে চন্দাকে ৩ মে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। আর দীপক ও তাঁর ভাই রাজীবকে ৩০ এপ্রিল তদন্তকারী অফিসারের সামনে উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।তদন্তে সাহায্যের জন্য ব্যক্তিগত ও অফিসের হিসেবের সঙ্গে যুক্ত বেশ কিছু নথিও আনতে বলা হয়েছে তাঁদের।

সিবিআইযের মামলার পরেই তিন জনের নামে জারি হয় লুক আউট নোটিস। যাতে কেউ দেশ ছাড়তে না পারেন এবং তেমন কোনও চেষ্টা হলে চন্দা, দীপক বা ধুতকে আটক করে তদন্তকারী সংস্থার হাতে তুলে দিতে পারেন অভিবাসন কর্তৃপক্ষ।

লুক আউট নোটিস জারি থাকা সত্ত্বেও গত ২০১৬ সালে বিজয় মাল্যের দেশ ছেড়ে যাওয়াকে কেন্দ্র করে বিস্তর জল ঘোলা হয়েছিল। দেশের ব্যাঙ্কগুলিতে বিপুল পরিমাণ ঋণ বাকি ফেলে বিদেশে পাড়ি দিয়েছিলেন বসে যাওয়া বিমান সংস্থা কিংফিশারের এয়ারলাইন্সের এই কর্ণধার। মোদী সরকারের মদতে ওই নোটিসের গুরুত্ব কমিয়ে দেওয়ার কারণেই তা সম্ভব হয়েছিল বলে তোপ দাগেন বিরোধীরা। সংশ্লিষ্ট মহলের দাবি, লোকসভা ভোটের আগে ভিডিয়োকন ঋণ কাণ্ডে আর তেমন কোনও ঝুঁকি নিতে রাজি নয় মোদী সরকার। অনেকেই বলছেন যে  যাতে তাদের দিকে আঙুল উঠতে না পারে, সেই কারণেই তড়িঘড়ি এফআইআর। এমনকি এই লুক আউটের নোটিসও।

Spread the love

আপনার প্রিয় ওয়েব ম্যাগাজিন ‘Life24’-এ আপনিও লিখতে পারেন এই ম্যাগাজিনের উপযুক্ত যে কোনও লেখা। লেখার সঙ্গে পাঠাবেন উপযুক্ত ২-৩টি ফটো। লেখা পাঠাবেন ইউনিকোডে টাইপ করে। ইউনিকোড ছাড়া কোনও লেখাই গ্রহণ করা হবে না। লেখা ও ফটো পাঠাবেন editor.life24@gmail.com আইডি-তে। কোন সেগমেন্টের লেখা পাঠাচ্ছেন, তা মেলের সাবজেক্টে অবশ্যই লিখে দেবেন। আর অবশ্যই মেলে আপনার নাম, ঠিকানা ও ফোন নম্বর জানাবেন।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে খুব কম খরচে আপনার পণ্য কিংবা সংস্থার বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। বিস্তারিত জানার জন্য মেল করুন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।

Life24 ওয়েব ম্যাগাজিনে ৩১ মার্চ পর্যন্ত আপনি একেবারেই বিনামূল্যে দিতে পারবেন শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন। এই বিভাগের যে কোনও সেগমেন্টের জন্য ৫০ শব্দের মধ্যে ইউনিকোডে লিখে মেল করে দিন advt.bearsmedia@gmail.com আইডি-তে।  মেলের সাবজেক্টে লিখে দেবেন 'শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন'।

# 'Life24' ওয়েব ম্যাগাজিন বা এই ওয়েব ম্যাগাজিনের লেখা সম্পর্কে আপনার মতামত লিখে জানান নিচের কমেন্ট বক্স-এ। আর হ্যাঁ, ম্যাগাজিনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার পরিচিতদের।